Monday, November 15, 2021

টাংগাইল সখিপুরে কলেজ ছাত্র ছাত্রী আট মাস সংসার করে বিয়ে ছাড়া

 


আট মাস ধরে সংসার করে আসছিলেন কলেজ ছাত্র ছাত্রী, বিবাহ ছাড়াই৷তারা সখিপুর পৌরসভার উত্তরার মোড় এবং ক্যাপটিন মুড়ে স্বামী স্ত্রীর পরিচয়ে এক সাথে বাসা ভাড়া করে থাকেন৷

 ঘটনাটি ঘটে পৌরসভার দুই নং ওয়ার্ডে কাহারতা রামখা কটাবাড়িতে,মুজিব কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্র রাব্বি,সে তার বন্ধুর মাধ্যমে গত এক বছর আগে সখিপুর মহিলা আবাসিক কলেজের এক ছাত্রীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলেন৷

রাব্বি মেয়েটি কে বিবাহ করবে বলে তাকে নিয়ে বাসা বাড়া করে থাকতে থাকে,মেয়েটি বারবার তাকে বিবাহর কথা বললে ছেলেটি নানান তালবাহানা করতে থাকে,অবশেষে ছেলেটি আত্মগোপনে থাকতে থাকে,রাব্বি কাহার্তা গ্রামের প্রবাসী লুৎফর রহমানের ছেলে৷

মেয়েটি দুইদিন দরে ছেলের বাড়িতে অনশনে থাকে,মেয়েটি জানান সে ঘরে ডুকতে গেলে তাকে লাথি মেরে বের করে দেওয়া হয়,এবং ছেলের পরিবারের সব লোক ঘরের বিতরে লক দিয়ে বিতরেই অবস্থান করছে,মেয়েকে দেখতে আশপাশের  এলাকা থেকে অনেক লোক আসছে৷

মেয়েটি আরো জানান ছেলের পরিবার তাকে মেনে না নিলে সে এই বাড়িতেই আত্মহত্যা করবে,ঐ ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিরল খলিলুর রহমান জানান বিষয়টি মিমাংসের জন্য উভয় পক্ষ কে নিয়ে বসা হয়েছিলো কিন্তু ছেলে পক্ষ রাজি না থাকাতে বিষয়টি মিমাংস করা যাইনি৷

কলেজ ছাত্রীর বাবা বলেন এইঘটনাটি স্বানীয়ভাবে মিমাংস না হলে আইনের আশ্রয় নিবেন,এবং সখিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা একে সাইদুল হক ভূইয়া জানান এই বিষয় নিয়ে এখনো কোনো অভিযোগ পাওয়া যাইনি,তবে অভিযোগ পেলে ব্যাবস্থা নেওয়া হবে৷


শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন দেখা হয়েছে !