Saturday, November 6, 2021

নিজ মায়ে খুন করলেন তার ধার্মিক মেয়েকে


 

কিশোরগন্জ জেলা করিমগন্জ থানার দেহুন্দা গ্রামে ঘটেছে এক নির্মম ঘটনা৷মাইশা আক্তার (১৮)ছিলেন একজন ধার্মিক মেয়ে, তার বাবার নাম আব্দুল্লাহ্ এবং মা স্বপ্না বেগম ,সে মহিলা মাদ্রাসায় মেশকাত বিভাগে লেখা পড়া করতেন৷

মাইশা কিছুদিন যাবৎ লক্ষ করেন তার স্বপ্না বেগমের চলাচল বেশি ভালো না,মাইশার মায়ের ফুফাতো ভাই কিছূ দিন পর পর তাদের বাড়িতে আসতো,মাইশা জানতে পারে তার মার পরকিয়ার কথা৷

মাইশা তার মাকে পরকীয়ার কঠিন শাস্তি কথা কোরআন হাদিসের আলোকে বুঝাতে চাইলেন,কিন্তু মাইশার মা মাইশার কথা শুনে তেলে বেগুনে জ্বলে ওঠেন,মাইশার কথা তার কাছে ভালো লাগে না৷

মাইশার মা স্বপ্না বেগম তার পরকীয়া স্বামীকে তার মেয়ে মাইশার কথা জানান,পরে দুইজনে মিলে বূদ্ধি করে মাইশাকে হত্যা করার পরিকল্পনা করে৷মাইশা মাদ্রাসা থেকে বাড়িতে ফিরলে পিছনের গেট বন্ধ করে দিয়ে তার মায়ের পরকীয়া স্বামী তাকে প্রথমে তার মায়ের সামনেই ধর্ষণ করে,পরে তার দু পা বেধে নিসংশ ভাবে হত্যা করে,এ সময় মাইশার বাবা আব্দুল্লাহ্ চাকরির কাজে বাহিরে ছিলেন৷

ঘটনাটি ঘটেছে গত বৃহস্প্রতিবারে ,আর এভাবেই মায়ে তার পরকীয়ার জন্য নিজ মেয়েকে শ্বাস রোধ করে হত্যা করে৷


শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন দেখা হয়েছে !