Monday, December 6, 2021

আজকের মধ্যো তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে পদত্যাগের নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

সম্প্রতি তথ্য প্রতিমন্ত্রী ড.মুরাদ হাসান বিভিন্ন করুচি পূর্ণ বক্তব্য দিয়ে সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে,কিছুদিন পূর্বে ড.মুরাদ ইসলাম ধর্ম নিয়ে নানান কথা রকমের কথা বলেন,তিনি বলেন রাস্ট্রধর্ম ইসলাম বাতিল করা হবে এবং তিনি রাস্ট্রধর্ম ইসলাম মানেন না৷সেই বক্তব্যর রেস কাটতে না কাটতেই আবার সে বিএনপির চেয়ারম্যারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার নাতনি ব্যারেস্টার জাইমা রহমান ও তার পরিবার কে নিয়ে করুচিপূর্ণ বক্তব্য দেন৷ জাইমা রহমান কে নিয়ে বক্তব্য দেওয়ার পর বিএনপির নেতাকর্মীরা এর কঠোর প্রতিবাদ করেন তার পদত্যাগের দাবি করেন,ব্যারেস্টার জাইমা রহমান কে নিয়ে বক্তব্য দেওয়ার মাঝেই আবার এসময়ে আলোচিত চিত্রনায়কা মাহিয়া মাহিকে নিয়ে একটি অডিও ফাস হয়,আর সেই অডিও কল রের্কডে মাহিয়া মাহিকে তুলে নিয়ে ধর্ষেণ হুমকিও দেই ড.মুরাদ৷ চিত্রনায়কা মাহিয়া মাহিকে নিয়ে সেই কলরের্কড ছড়িয়ে পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ,এর পর থেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঝড় তুলতে থাকে সাধারণ জনগণ,গতকাল এক সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের কে এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন এটা তার ব্যাক্তিগত ব্যাপার,তবে এই রকম কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য তার দেওয়া ঠিক হয় নাই,এবিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কে জানানো হবে৷ সোমবার ৪ই ডিসেম্বর রাতে ওবায়দুল কাদেরের বাসায় সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি জানান ড.মুরাদ হাসানের ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর সাথে কথা হয়েছে,তিনি তাকে মঙ্গলবারের মধ্য মন্ত্রীসভা থেকে পদত্যাগের নির্দেশ দিছেন,প্রধানমন্ত্রী বার্তা ড.মুরাদ হাসানে কাছে পৌছে দেওয়া হয়েছে৷ ২০০৮সালে নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ থেকে মনোনয়ন পেয়ে জামাপুর-৪আসন থেকে প্রথম এমপি নির্বাচিত হন ড.মুরাদ এরপরে ২০১৪সালে আওয়ামীলীগের মনোনয় পাননি ড.মুরাদ হাসান,সর্বশেষ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২০১৮সালে এমপি নির্বাচিত হয়,২০১৯সালে প্রথমে স্বাস্থ প্রতিমন্ত্রী দ্বায়িত্ব পান ড.মুরাদ হাসান,কিছুদিন পরেই দপ্তর পরিবর্তন করে দ্বায়িত্ব দেওয়া তথ্য প্রতিমন্ত্রীর৷

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন দেখা হয়েছে !